০৯:৪৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪

সিলেটে পিকআপ ভ্যানভর্তি মাধ্যমিকের বই উদ্ধার ঘটনায় মামলা, গ্রেপ্তার ২

নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৬:৩২:৩৩ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৩১ জুলাই ২০২২
  • / ২৮৫ বার পড়া হয়েছে

সিলেটের কাজিরবাজারে একটি পিকআপ ভ্যানে মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বই উদ্ধারের ঘটনায় মামলা হয়েছে। সিলেটের কোতয়ালী থানার লামাবাজার পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক (এসআই) রাশেদ ফজল গত শনিবার রাতে ৫ হাজার ৬০০ বই চুরির অভিযোগে থানায় মামলা করেন। মামলায় দুজনের নাম এবং অজ্ঞাত আরও কয়েকজনকে আসামি করা হয়েছে।

সিলেট কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আলী মাহমুদ ওপেন নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলায় গোয়াইনঘাট উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের নৈশ প্রহরী শাহাব উদ্দিন ও কাজিরবাজারে বই ক্রয়-বিক্রয় করতে আসা আনোয়ার মিয়াকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সেক্ষেত্রে বই পরিবহনে ব্যবহৃত পিকআপটি জব্দ দেখানো হয়েছে।

গতকাল সকাল সাড়ে ১০টার দিকে একটি পিকআপ ভ্যান মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বই বিক্রির জন্য নিয়ে আসছে এমন খবর পেয়ে কাজিরবাজারে অভিযান চালায় কোতোয়ালি থানা পুলিশ। এ সময় পিকআপের চালক ও আনোয়ার মিয়া নামে এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়। প্রাথমিক তদন্তে গোয়াইনঘাট উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস থেকে বইগুলো বিক্রির জন্য আনা হয়েছে বলে পুলিশ জানতে পারে। পরে পুলিশ বইগুলো বাজেয়াপ্ত করে।

গোয়াইনঘাট উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের একাডেমিক সুপারভাইজার শ্যামল কুমার রায় জানান, নৈশ প্রহরী শাহাব উদ্দিন গোপনে গোডাউনে কিছু বই বিক্রি করেন। বইগুলো বন্যার পানিতে ভিজে গেছে। এ ঘটনায় জেলা শিক্ষা অফিস থেকে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

ওসি মোহাম্মদ আলী মাহমুদ জানান, পিকআপ ভ্যানে থাকা সরকারি বই উদ্ধারে থানায় চুরির মামলা হয়েছে। ওই পিকআপে 5,600টি বই ছিল। প্রাথমিক তদন্তে নিশ্চিত হয়েছে পিকআপের চালক জড়িত নয়। এ জন্য তাকে অভিযুক্ত করা হয়নি। আটক দুজনকে রোববার আদালতে পাঠানো হবে। এ ঘটনায় অন্য কেউ জড়িত থাকলে তাদেরও আইনের আওতায় আনা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

সিলেটে পিকআপ ভ্যানভর্তি মাধ্যমিকের বই উদ্ধার ঘটনায় মামলা, গ্রেপ্তার ২

আপডেট সময় ০৬:৩২:৩৩ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৩১ জুলাই ২০২২

সিলেটের কাজিরবাজারে একটি পিকআপ ভ্যানে মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বই উদ্ধারের ঘটনায় মামলা হয়েছে। সিলেটের কোতয়ালী থানার লামাবাজার পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক (এসআই) রাশেদ ফজল গত শনিবার রাতে ৫ হাজার ৬০০ বই চুরির অভিযোগে থানায় মামলা করেন। মামলায় দুজনের নাম এবং অজ্ঞাত আরও কয়েকজনকে আসামি করা হয়েছে।

সিলেট কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আলী মাহমুদ ওপেন নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলায় গোয়াইনঘাট উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের নৈশ প্রহরী শাহাব উদ্দিন ও কাজিরবাজারে বই ক্রয়-বিক্রয় করতে আসা আনোয়ার মিয়াকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সেক্ষেত্রে বই পরিবহনে ব্যবহৃত পিকআপটি জব্দ দেখানো হয়েছে।

গতকাল সকাল সাড়ে ১০টার দিকে একটি পিকআপ ভ্যান মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বই বিক্রির জন্য নিয়ে আসছে এমন খবর পেয়ে কাজিরবাজারে অভিযান চালায় কোতোয়ালি থানা পুলিশ। এ সময় পিকআপের চালক ও আনোয়ার মিয়া নামে এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়। প্রাথমিক তদন্তে গোয়াইনঘাট উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস থেকে বইগুলো বিক্রির জন্য আনা হয়েছে বলে পুলিশ জানতে পারে। পরে পুলিশ বইগুলো বাজেয়াপ্ত করে।

গোয়াইনঘাট উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের একাডেমিক সুপারভাইজার শ্যামল কুমার রায় জানান, নৈশ প্রহরী শাহাব উদ্দিন গোপনে গোডাউনে কিছু বই বিক্রি করেন। বইগুলো বন্যার পানিতে ভিজে গেছে। এ ঘটনায় জেলা শিক্ষা অফিস থেকে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

ওসি মোহাম্মদ আলী মাহমুদ জানান, পিকআপ ভ্যানে থাকা সরকারি বই উদ্ধারে থানায় চুরির মামলা হয়েছে। ওই পিকআপে 5,600টি বই ছিল। প্রাথমিক তদন্তে নিশ্চিত হয়েছে পিকআপের চালক জড়িত নয়। এ জন্য তাকে অভিযুক্ত করা হয়নি। আটক দুজনকে রোববার আদালতে পাঠানো হবে। এ ঘটনায় অন্য কেউ জড়িত থাকলে তাদেরও আইনের আওতায় আনা হবে।