১০:৪৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪

যুক্তরাজ্যে হিটস্ট্রোক এড়াতে নিরাপদ থাকার পরামর্শ

নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৪:০০:১৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৬ জুলাই ২০২২
  • / ২৬২ বার পড়া হয়েছে

bdopennews

তাপপ্রবাহে ব্রিটিশ জীবন। আগামী সপ্তাহে ইংল্যান্ডে তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে পৌঁছবে বলে আশা করা হচ্ছে। যুক্তরাজ্যের বাকি অংশে তাপ বাড়তে পারে। ইউকে হেলথ সেফটি এজেন্সির (ইউকেএইচএসএ) প্রধান বিজ্ঞানী অধ্যাপক ইসাবেল অলিভার এই ধরনের পরিস্থিতিতে মৃত্যু এড়াতে সহজ ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

শনিবার বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, গরমের কারণে যুক্তরাজ্যে জাতীয় জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে। ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের কারণে দেশে প্রথমবারের মতো রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে। ইংল্যান্ড এবং ওয়েলসকে অপ্রয়োজনীয় রেল ভ্রমণের বিরুদ্ধে সতর্ক করা হয়েছে। ট্রেনের গতি সীমা নির্দিষ্ট করা যেতে পারে। গরমের মধ্যে কিছু স্কুল আগামী সপ্তাহের শুরুতে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। কিছু হাসপাতালে রোগীদের অ্যাপয়েন্টমেন্টও বাতিল করা হয়েছে।

বিবিসি রেডিও ফোর ‘টুডে’ অনুষ্ঠানে ইসাবেল অলিভারকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, গরমের কারণে হাজার হাজার মানুষ মারা যেতে পারে কিনা। কারণ মিডিয়ায় এমন কথা বলা হচ্ছে। ইসাবেল প্রতিক্রিয়ায় নির্দিষ্ট মৃত্যুর সংখ্যা প্রদান করেননি। তিনি বলেন, “বিষয়টি ভবিষ্যদ্বাণী করা খুবই কঠিন। তবে আমি আপনাকে বলতে পারি, আমরা গভীরভাবে নজর রাখছি।

ইসাবেল বলেছেন: ‘আগামী সপ্তাহের জন্য তাপমাত্রার পূর্বাভাস গত বছরের তুলনায় যুক্তরাজ্যে গরমের কাছাকাছি কোথাও ছিল না। যে কারণে, সেই গ্রীষ্মে অতিরিক্ত 1,600 জন মারা গিয়েছিল। এই কারণে, আমরা সবাই নিরাপদ থাকার বিভিন্ন উপায় সম্পর্কে জানতে চাই।

ইউকেএইচএসএ কর্মকর্তা সাক্ষাৎকারে নিরাপদ থাকার উপায় সম্পর্কেও কথা বলেছেন। তিনি বলেন, “মূল বার্তাটি হ’ল আমরা কিছু সহজ ব্যবস্থা অনুসরণ করলে অবশ্যই এই মৃত্যু (তাপের কারণে) এড়াতে পারি।” আমরা নিশ্চিত করতে হবে যে আমরা পর্যাপ্ত পানি পান করি। নিজেকে ঠান্ডা রাখুন; আমাদের সূর্যের তাপ এড়াতে হবে বিশেষ করে সকাল ১১টা থেকে বিকেল ৩টার মধ্যে যখন সূর্য সবচেয়ে বেশি থাকে। আর গরমের কারণে যারা সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে থাকেন, তাদের খেয়াল রাখতে হবে। বিবিসি ওয়েদারের একজন কর্মকর্তা সুসান পয়েল বলেছেন, যুক্তরাজ্যে বর্তমান তাপমাত্রা নজিরবিহীন। তিনি বলেন, 2019 সালে কেমব্রিজে সর্বোচ্চ 38.7 ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল। এবার সেই রেকর্ড ভাঙার সম্ভাবনা 80 শতাংশ। এবং তাপমাত্রা 40 ডিগ্রি সেলসিয়াস ছাড়িয়ে যাওয়ার অন্তত 50 শতাংশ সম্ভাবনা রয়েছে। উত্তর আয়ারল্যান্ড এবং স্কটল্যান্ডও নতুন তাপমাত্রার রেকর্ড দেখতে পারে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

যুক্তরাজ্যে হিটস্ট্রোক এড়াতে নিরাপদ থাকার পরামর্শ

আপডেট সময় ০৪:০০:১৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৬ জুলাই ২০২২

তাপপ্রবাহে ব্রিটিশ জীবন। আগামী সপ্তাহে ইংল্যান্ডে তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে পৌঁছবে বলে আশা করা হচ্ছে। যুক্তরাজ্যের বাকি অংশে তাপ বাড়তে পারে। ইউকে হেলথ সেফটি এজেন্সির (ইউকেএইচএসএ) প্রধান বিজ্ঞানী অধ্যাপক ইসাবেল অলিভার এই ধরনের পরিস্থিতিতে মৃত্যু এড়াতে সহজ ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

শনিবার বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, গরমের কারণে যুক্তরাজ্যে জাতীয় জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে। ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের কারণে দেশে প্রথমবারের মতো রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে। ইংল্যান্ড এবং ওয়েলসকে অপ্রয়োজনীয় রেল ভ্রমণের বিরুদ্ধে সতর্ক করা হয়েছে। ট্রেনের গতি সীমা নির্দিষ্ট করা যেতে পারে। গরমের মধ্যে কিছু স্কুল আগামী সপ্তাহের শুরুতে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। কিছু হাসপাতালে রোগীদের অ্যাপয়েন্টমেন্টও বাতিল করা হয়েছে।

বিবিসি রেডিও ফোর ‘টুডে’ অনুষ্ঠানে ইসাবেল অলিভারকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, গরমের কারণে হাজার হাজার মানুষ মারা যেতে পারে কিনা। কারণ মিডিয়ায় এমন কথা বলা হচ্ছে। ইসাবেল প্রতিক্রিয়ায় নির্দিষ্ট মৃত্যুর সংখ্যা প্রদান করেননি। তিনি বলেন, “বিষয়টি ভবিষ্যদ্বাণী করা খুবই কঠিন। তবে আমি আপনাকে বলতে পারি, আমরা গভীরভাবে নজর রাখছি।

ইসাবেল বলেছেন: ‘আগামী সপ্তাহের জন্য তাপমাত্রার পূর্বাভাস গত বছরের তুলনায় যুক্তরাজ্যে গরমের কাছাকাছি কোথাও ছিল না। যে কারণে, সেই গ্রীষ্মে অতিরিক্ত 1,600 জন মারা গিয়েছিল। এই কারণে, আমরা সবাই নিরাপদ থাকার বিভিন্ন উপায় সম্পর্কে জানতে চাই।

ইউকেএইচএসএ কর্মকর্তা সাক্ষাৎকারে নিরাপদ থাকার উপায় সম্পর্কেও কথা বলেছেন। তিনি বলেন, “মূল বার্তাটি হ’ল আমরা কিছু সহজ ব্যবস্থা অনুসরণ করলে অবশ্যই এই মৃত্যু (তাপের কারণে) এড়াতে পারি।” আমরা নিশ্চিত করতে হবে যে আমরা পর্যাপ্ত পানি পান করি। নিজেকে ঠান্ডা রাখুন; আমাদের সূর্যের তাপ এড়াতে হবে বিশেষ করে সকাল ১১টা থেকে বিকেল ৩টার মধ্যে যখন সূর্য সবচেয়ে বেশি থাকে। আর গরমের কারণে যারা সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে থাকেন, তাদের খেয়াল রাখতে হবে। বিবিসি ওয়েদারের একজন কর্মকর্তা সুসান পয়েল বলেছেন, যুক্তরাজ্যে বর্তমান তাপমাত্রা নজিরবিহীন। তিনি বলেন, 2019 সালে কেমব্রিজে সর্বোচ্চ 38.7 ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল। এবার সেই রেকর্ড ভাঙার সম্ভাবনা 80 শতাংশ। এবং তাপমাত্রা 40 ডিগ্রি সেলসিয়াস ছাড়িয়ে যাওয়ার অন্তত 50 শতাংশ সম্ভাবনা রয়েছে। উত্তর আয়ারল্যান্ড এবং স্কটল্যান্ডও নতুন তাপমাত্রার রেকর্ড দেখতে পারে।