১২:৩৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪

বাবুল আক্তার খুব চালাক মানুষ: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৯:২৩:১৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১০ সেপ্টেম্বর ২০২২
  • / ৬৯৩ বার পড়া হয়েছে

bdopennews

পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) প্রধানসহ ছয় কর্মকর্তার বিরুদ্ধে সাবেক পুলিশ সুপার (এসপি) বাবুল আখতারের অভিযোগ তদন্ত করা হবে বলে জানিয়েছেন বাবুল আক্তারখান। তবে বাবুল আক্তারকে ‘খুব চালাক’ বলে মনে করেন তিনি।

শনিবার রাজধানীর জাতীয় জাদুঘরে বাংলাদেশ মহিলা ঐক্য পরিষদ আয়োজিত এক সেমিনারে অংশ নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

বৃহস্পতিবার বাবুল আক্তার হেফাজতে নির্যাতনের অভিযোগে ছয় পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা করার আবেদন করেন। চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ জেবুন্নেছার আদালতে বাবুলের পক্ষে তার আইনজীবী কামরুল ইসলাম চৌধুরী সাজ্জাদ আবেদনটি করেন।

আবেদনে বলা হয়, বাবুলকে পিবিআই চট্টগ্রাম কার্যালয়ে ডেকে হাতকড়া পরিয়ে ও চোখ বেঁধে রাখা হয়। স্ত্রী মাহমুদা খানমকে হত্যার কথা স্বীকার করে পিবিআই প্রধান বনজ কুমারের নির্দেশে তাকে নির্যাতন করা হয়। আসাদুজ্জামান খান বলেন, বাবুল আক্তার যা বলেছেন তা বাস্তব নাকি তা তদন্তের পর জানা যাবে। পিবিআই বিশ্বস্ত। তারা এখন পর্যন্ত সবকিছু পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে তদন্ত করেছে। ৩০ বছর আগের মামলায় পিবিআই তদন্ত করে দোষী খুঁজে পায়। আমি মনে করি পিবিআই ভুল করবে না। বাবুল আক্তার যে প্রশ্ন তুলেছেন তা তদন্ত হলেই বেরিয়ে আসবে।

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘বাবুল আক্তার খুবই চতুর মানুষ। তিনি কখন কী বলেন তার ব্যবসা। এ বিষয়ে আমার কোনো মন্তব্য নেই।’

মিয়ানমার সীমান্তে গোলাবর্ষণের কথাও বলেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, রাজ্যস্তরে প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। শিগগিরই এর সমাধান হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

বাবুল আক্তার খুব চালাক মানুষ: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

আপডেট সময় ০৯:২৩:১৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১০ সেপ্টেম্বর ২০২২

পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) প্রধানসহ ছয় কর্মকর্তার বিরুদ্ধে সাবেক পুলিশ সুপার (এসপি) বাবুল আখতারের অভিযোগ তদন্ত করা হবে বলে জানিয়েছেন বাবুল আক্তারখান। তবে বাবুল আক্তারকে ‘খুব চালাক’ বলে মনে করেন তিনি।

শনিবার রাজধানীর জাতীয় জাদুঘরে বাংলাদেশ মহিলা ঐক্য পরিষদ আয়োজিত এক সেমিনারে অংশ নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

বৃহস্পতিবার বাবুল আক্তার হেফাজতে নির্যাতনের অভিযোগে ছয় পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা করার আবেদন করেন। চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ জেবুন্নেছার আদালতে বাবুলের পক্ষে তার আইনজীবী কামরুল ইসলাম চৌধুরী সাজ্জাদ আবেদনটি করেন।

আবেদনে বলা হয়, বাবুলকে পিবিআই চট্টগ্রাম কার্যালয়ে ডেকে হাতকড়া পরিয়ে ও চোখ বেঁধে রাখা হয়। স্ত্রী মাহমুদা খানমকে হত্যার কথা স্বীকার করে পিবিআই প্রধান বনজ কুমারের নির্দেশে তাকে নির্যাতন করা হয়। আসাদুজ্জামান খান বলেন, বাবুল আক্তার যা বলেছেন তা বাস্তব নাকি তা তদন্তের পর জানা যাবে। পিবিআই বিশ্বস্ত। তারা এখন পর্যন্ত সবকিছু পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে তদন্ত করেছে। ৩০ বছর আগের মামলায় পিবিআই তদন্ত করে দোষী খুঁজে পায়। আমি মনে করি পিবিআই ভুল করবে না। বাবুল আক্তার যে প্রশ্ন তুলেছেন তা তদন্ত হলেই বেরিয়ে আসবে।

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘বাবুল আক্তার খুবই চতুর মানুষ। তিনি কখন কী বলেন তার ব্যবসা। এ বিষয়ে আমার কোনো মন্তব্য নেই।’

মিয়ানমার সীমান্তে গোলাবর্ষণের কথাও বলেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, রাজ্যস্তরে প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। শিগগিরই এর সমাধান হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।