০২:২১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪

তামিম ভেবেছিলেন ৩৫ ওভারের মধ্যেই হেরে যাবে বাংলাদেশ

নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৫:১৭:০৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২
  • / ৬২৮ বার পড়া হয়েছে

bdopennews

ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে তামিম ইকবালের মুখে সেই হাসি ফুটে ওঠেনি। আজ জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে শেষ ম্যাচে 105 রানে জিতলেও, 2-1 সিরিজ হার তার সম্ভাব্য কারণ হতে পারে।

তবে স্বস্তি লুকাননি বাংলাদেশ অধিনায়ক। প্রথম ওয়ানডেতে ৩০৩ রানে হেরে যাওয়া দল, পরের ম্যাচে ২৯০ রানেও জয়ের যথেষ্ট প্রমাণ দিতে পারেনি বোলাররা। আজ তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতে বাংলাদেশ 9 উইকেটে 256 রান তুলেছে। স্বভাবতই এই সংগ্রহ নিয়ে চিন্তিত তামিম।

অন্য কথায়, বোলিংয়ে শুধু আক্রমণ, আক্রমণ এবং আক্রমণ- এই মন্ত্রটিই তামিম বোলারদের মধ্যে ঢুকিয়ে দিয়েছিলেন, ‘আমি ভেবেছিলাম, আমি কেবল আক্রমণ এবং আক্রমণ করব। তারপর দেখা যাবে কি হয়। সৌভাগ্যবশত আমরা দ্রুত ৫ উইকেট পেয়েছিলাম, তারপর বাকিটা হয়ে গেল।

সিরিজের এই শেষ ম্যাচ দিয়ে ওয়ানডে অভিষেক হয় পেসার ইবাদত হোসেনের। ইবাদত নিজের ওভারে ওয়েসলি মাধভেরেকে তুলে নেন এবং আগের দুই ম্যাচে সেঞ্চুরি করা সিকান্দার রাজাকে। জিম্বাবুয়ে তখন ষষ্ঠ ওভারে ১৮ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে।

ইবাদতের পারফরম্যান্সে সন্তুষ্ট তামিম বলেন, ‘আমরা তাকে দীর্ঘদিন ধরে দলের সঙ্গে রেখেছি। এই সিরিজে মূল দলে জায়গা না পাওয়ায় একটু অবাক হলাম। এটি তার জন্য একটি দুর্দান্ত সুযোগ ছিল এবং সৌভাগ্যক্রমে সে প্রত্যাশা পূরণ করেছে।’

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

তামিম ভেবেছিলেন ৩৫ ওভারের মধ্যেই হেরে যাবে বাংলাদেশ

আপডেট সময় ০৫:১৭:০৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২

ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে তামিম ইকবালের মুখে সেই হাসি ফুটে ওঠেনি। আজ জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে শেষ ম্যাচে 105 রানে জিতলেও, 2-1 সিরিজ হার তার সম্ভাব্য কারণ হতে পারে।

তবে স্বস্তি লুকাননি বাংলাদেশ অধিনায়ক। প্রথম ওয়ানডেতে ৩০৩ রানে হেরে যাওয়া দল, পরের ম্যাচে ২৯০ রানেও জয়ের যথেষ্ট প্রমাণ দিতে পারেনি বোলাররা। আজ তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতে বাংলাদেশ 9 উইকেটে 256 রান তুলেছে। স্বভাবতই এই সংগ্রহ নিয়ে চিন্তিত তামিম।

অন্য কথায়, বোলিংয়ে শুধু আক্রমণ, আক্রমণ এবং আক্রমণ- এই মন্ত্রটিই তামিম বোলারদের মধ্যে ঢুকিয়ে দিয়েছিলেন, ‘আমি ভেবেছিলাম, আমি কেবল আক্রমণ এবং আক্রমণ করব। তারপর দেখা যাবে কি হয়। সৌভাগ্যবশত আমরা দ্রুত ৫ উইকেট পেয়েছিলাম, তারপর বাকিটা হয়ে গেল।

সিরিজের এই শেষ ম্যাচ দিয়ে ওয়ানডে অভিষেক হয় পেসার ইবাদত হোসেনের। ইবাদত নিজের ওভারে ওয়েসলি মাধভেরেকে তুলে নেন এবং আগের দুই ম্যাচে সেঞ্চুরি করা সিকান্দার রাজাকে। জিম্বাবুয়ে তখন ষষ্ঠ ওভারে ১৮ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে।

ইবাদতের পারফরম্যান্সে সন্তুষ্ট তামিম বলেন, ‘আমরা তাকে দীর্ঘদিন ধরে দলের সঙ্গে রেখেছি। এই সিরিজে মূল দলে জায়গা না পাওয়ায় একটু অবাক হলাম। এটি তার জন্য একটি দুর্দান্ত সুযোগ ছিল এবং সৌভাগ্যক্রমে সে প্রত্যাশা পূরণ করেছে।’