০২:৩৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪

ডলারের দাম ১ টাকা বাড়িয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক

নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৪:২৫:০২ অপরাহ্ন, সোমবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০২২
  • / ১২৬৩ বার পড়া হয়েছে

bdopennews

ডলারের দাম আরও এক টাকা বাড়িয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এখন থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকে প্রতি ডলারের বিনিময় হার হবে ৯৬ টাকা। গতকালও এই দাম ছিল ৯৫ টাকা। বাংলাদেশ ব্যাংক যে দামে ডলার বিক্রি করে তাকে আন্তঃব্যাংক লেনদেন মূল্য বলে। তবে বাংলাদেশ ব্যাংক ছাড়া অন্য কোনো ব্যাংক এ দামে ডলার মেলাতে পারে না।

এর আগে সোমবার অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকার্স বাংলাদেশ (এবিবি) এবং বাংলাদেশ ফরেন এক্সচেঞ্জ অথরাইজড ডিলার অ্যাসোসিয়েশনের (বাফেডা) নেতারা প্রবাসী আয়, আমদানি ঋণ নিষ্পত্তি এবং রপ্তানি আয়ের পরিপ্রেক্ষিতে নতুন দাম নির্ধারণ করেন। দুই সংগঠনের নেতারা একসঙ্গে প্রবাসী আয়ের জন্য ডলারের দাম ১০৮ টাকা, আমদানি দায় নিষ্পত্তির জন্য ১০৪ টাকা ৫০ পয়সা এবং রপ্তানি আয়ের জন্য ৯৯ টাকা নির্ধারণ করেন। একই দিন কেন্দ্রীয় ব্যাংকও আন্তঃব্যাংক লেনদেনে ডলারের দাম এক টাকা বাড়িয়েছে। বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ থেকে ৯৬ টাকা দরে ​​ব্যাংকগুলোর কাছে ৬০ দশমিক ৩ মিলিয়ন ডলার বিক্রি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। সরকারি আমদানি বিল মেটাতে এই ডলারগুলো ব্যাংকে বিক্রি করা হয়। ফলে এটাই হচ্ছে ডলারের অফিসিয়াল রেট।

ডলারের হার নির্ধারণে বাংলাদেশ ব্যাংক বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালাচ্ছে। একের পর এক সিদ্ধান্ত সংকটের অবসান ঘটায় না, বরং জটিলতা বাড়ায়। ফলে আগের অবস্থান থেকে সরে এসে কেন্দ্রীয় ব্যাংক এখন বলছে চাহিদা ও যোগানের ভিত্তিতে ডলারের দাম নির্ধারণ করা হবে।

জানতে চাইলে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম BD IPEN NEWS

কে বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে আজ নতুন দামে ডলার বিক্রি হয়েছে।

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের পর আমদানি ব্যয় বেড়ে যাওয়ায় দেশে ডলার সংকট তৈরি হয়েছে। ফলে দামও বাড়ছে। গত মে মাসে ডলারের দাম ছিল ৮৬ টাকা। সেখান থেকে ক্রমশ তা বাড়িয়ে আজ ৯৬ টাকা করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। আর রিজার্ভ থেকে ডলার বিক্রির ফলে রিজার্ভ কমেছে ৩ হাজার ৭১৩ বিলিয়ন ডলার, যা গত বছর বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪ হাজার ৮০০ বিলিয়ন ডলারে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ডলারের দাম ১ টাকা বাড়িয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক

আপডেট সময় ০৪:২৫:০২ অপরাহ্ন, সোমবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০২২

ডলারের দাম আরও এক টাকা বাড়িয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এখন থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকে প্রতি ডলারের বিনিময় হার হবে ৯৬ টাকা। গতকালও এই দাম ছিল ৯৫ টাকা। বাংলাদেশ ব্যাংক যে দামে ডলার বিক্রি করে তাকে আন্তঃব্যাংক লেনদেন মূল্য বলে। তবে বাংলাদেশ ব্যাংক ছাড়া অন্য কোনো ব্যাংক এ দামে ডলার মেলাতে পারে না।

এর আগে সোমবার অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকার্স বাংলাদেশ (এবিবি) এবং বাংলাদেশ ফরেন এক্সচেঞ্জ অথরাইজড ডিলার অ্যাসোসিয়েশনের (বাফেডা) নেতারা প্রবাসী আয়, আমদানি ঋণ নিষ্পত্তি এবং রপ্তানি আয়ের পরিপ্রেক্ষিতে নতুন দাম নির্ধারণ করেন। দুই সংগঠনের নেতারা একসঙ্গে প্রবাসী আয়ের জন্য ডলারের দাম ১০৮ টাকা, আমদানি দায় নিষ্পত্তির জন্য ১০৪ টাকা ৫০ পয়সা এবং রপ্তানি আয়ের জন্য ৯৯ টাকা নির্ধারণ করেন। একই দিন কেন্দ্রীয় ব্যাংকও আন্তঃব্যাংক লেনদেনে ডলারের দাম এক টাকা বাড়িয়েছে। বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ থেকে ৯৬ টাকা দরে ​​ব্যাংকগুলোর কাছে ৬০ দশমিক ৩ মিলিয়ন ডলার বিক্রি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। সরকারি আমদানি বিল মেটাতে এই ডলারগুলো ব্যাংকে বিক্রি করা হয়। ফলে এটাই হচ্ছে ডলারের অফিসিয়াল রেট।

ডলারের হার নির্ধারণে বাংলাদেশ ব্যাংক বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালাচ্ছে। একের পর এক সিদ্ধান্ত সংকটের অবসান ঘটায় না, বরং জটিলতা বাড়ায়। ফলে আগের অবস্থান থেকে সরে এসে কেন্দ্রীয় ব্যাংক এখন বলছে চাহিদা ও যোগানের ভিত্তিতে ডলারের দাম নির্ধারণ করা হবে।

জানতে চাইলে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম BD IPEN NEWS

কে বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে আজ নতুন দামে ডলার বিক্রি হয়েছে।

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের পর আমদানি ব্যয় বেড়ে যাওয়ায় দেশে ডলার সংকট তৈরি হয়েছে। ফলে দামও বাড়ছে। গত মে মাসে ডলারের দাম ছিল ৮৬ টাকা। সেখান থেকে ক্রমশ তা বাড়িয়ে আজ ৯৬ টাকা করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। আর রিজার্ভ থেকে ডলার বিক্রির ফলে রিজার্ভ কমেছে ৩ হাজার ৭১৩ বিলিয়ন ডলার, যা গত বছর বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪ হাজার ৮০০ বিলিয়ন ডলারে।