০১:৩৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪

‘গাড়ির টুলবক্স’ দিয়ে খুলে দেওয়া হলো পদ্মা সেতুর বাদাম!

নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৮:১৮:৪৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ জুন ২০২২
  • / ৮২৬ বার পড়া হয়েছে

bdopennews

পদ্মা সেতুতে যেদিন যানজট শুরু হয়েছিল সেদিন বায়েজিদ তালহা এক বন্ধুর সঙ্গে প্রাইভেট কারে হাঁটতে গিয়েছিলেন। টোল প্লাজায় টাকা পরিশোধ করে সেতুর জাজিরা প্রান্তে ফিরে আসার পর, তিনি টিক-ট্যাক ভিডিও করতে 30 এবং 35 নম্বর পিলারের মধ্যে অবতরণ করেন। তবে তার আসল উদ্দেশ্য ছিল এই ভিডিও তৈরি করে পদ্মা সেতু নির্মাণ নিয়ে প্রশ্ন তোলা। তাই গাড়িতে থাকা টুলবক্সের টুল ব্যবহার করে প্রথমে সেতুর রেলিংয়ের বাদাম খুলে দেন তারা। পরে হাত দিয়ে আলগা বাদাম খোলার ভিডিও করেন। সেই ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে।

পদ্মা সেতু উদ্বোধনের ঘটনায় গ্রেফতার বায়েজিদ তালহা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে এ তথ্য জানান। নাম প্রকাশ না করার শর্তে সিআইডির একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা সোমবার বলেন, বায়েজিদ তালহা পদ্মা সেতু নিয়ে ‘নেতিবাচক ইস্যু তৈরি করতে’ ভিডিওটি করেছেন। ঘটনার সময় সিজার এক বন্ধুর সঙ্গে ছিলেন। কায়সারকে খোঁজা হচ্ছে।

ভিডিওতে দেখা যায়, পদ্মা সেতুর পিলারের বাদাম খুলেছেন এক যুবক। কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই বিকেলে রাজধানীর শান্তিনগর এলাকা থেকে বায়েজিদ তালহাকে (৩১) গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে পদ্মা সেতু দক্ষিণ থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা হয়েছে। মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সোমবার তাকে সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

সোমবার বিকেলে মালিবাগে অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

নাট খুলতে কী ধরনের যন্ত্রপাতি ব্যবহার করা হয়েছে জানতে চাইলে সিআইডির সাইবার ইন্টেলিজেন্স অ্যান্ড রিস্ক ম্যানেজমেন্ট বিভাগের বিশেষ পুলিশ সুপার রেজাউল মাসুদ বলেন, পদ্মা সেতুর নাট বোল্ট হাতে দিয়ে খোলা সম্ভব নয়। আমরা সেতু কর্তৃপক্ষের সাথেও বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করেছি এবং জেনেছি যে এত বড় স্থাপনার নাটবোল্ট হাত দিয়ে খোলা যাবে না,” তিনি বলেন। তবে কীভাবে তিনি এ কাজ করেছেন সে বিষয়ে এখনো কোনো তথ্য দেননি। ওরা একটা গাড়িতে করে সেখানে গেল, সাথে সিজার নামে আরেকজন। সেই কায়সার আইডি থেকে বাদাম খোলার ৩০ থেকে ৩৫ সেকেন্ডের ভিডিও আপলোড করা হয়েছে।

তদন্তের সাথে জড়িত একজন সিআইডি কর্মকর্তা বলেছেন যে বায়েজিদ এবং তার বন্ধু যে গাড়িটি চালিয়েছিলেন তার একটি টোল রশিদ পাওয়া গেছে। সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে গাড়িটিকে শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে। তিনি বলেন, আমরা বায়েজিদের সঙ্গে ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। তার দেখানো তথ্যের ভিত্তিতে আমরা জায়গাটিও শনাক্ত করেছি। স্থানটির নিদর্শন হিসেবে ছবি তোলা হয়েছে।

যন্ত্রপাতি দিয়ে বাদাম খোলার ভিডিও আছে কি না জানতে চাইলে ওই কর্মকর্তা বলেন, বায়েজিদের মোবাইল ফোনে এমন কোনো ভিডিও নেই। তবে আমরা জানতে পেরেছি যে সেখানে উপস্থিত কেউ দৃশ্যটির ভিডিও ধারণ করেছে। আমরা ভিডিওটি উদ্ধারের চেষ্টা করছি। “

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

‘গাড়ির টুলবক্স’ দিয়ে খুলে দেওয়া হলো পদ্মা সেতুর বাদাম!

আপডেট সময় ০৮:১৮:৪৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ জুন ২০২২

পদ্মা সেতুতে যেদিন যানজট শুরু হয়েছিল সেদিন বায়েজিদ তালহা এক বন্ধুর সঙ্গে প্রাইভেট কারে হাঁটতে গিয়েছিলেন। টোল প্লাজায় টাকা পরিশোধ করে সেতুর জাজিরা প্রান্তে ফিরে আসার পর, তিনি টিক-ট্যাক ভিডিও করতে 30 এবং 35 নম্বর পিলারের মধ্যে অবতরণ করেন। তবে তার আসল উদ্দেশ্য ছিল এই ভিডিও তৈরি করে পদ্মা সেতু নির্মাণ নিয়ে প্রশ্ন তোলা। তাই গাড়িতে থাকা টুলবক্সের টুল ব্যবহার করে প্রথমে সেতুর রেলিংয়ের বাদাম খুলে দেন তারা। পরে হাত দিয়ে আলগা বাদাম খোলার ভিডিও করেন। সেই ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে।

পদ্মা সেতু উদ্বোধনের ঘটনায় গ্রেফতার বায়েজিদ তালহা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে এ তথ্য জানান। নাম প্রকাশ না করার শর্তে সিআইডির একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা সোমবার বলেন, বায়েজিদ তালহা পদ্মা সেতু নিয়ে ‘নেতিবাচক ইস্যু তৈরি করতে’ ভিডিওটি করেছেন। ঘটনার সময় সিজার এক বন্ধুর সঙ্গে ছিলেন। কায়সারকে খোঁজা হচ্ছে।

ভিডিওতে দেখা যায়, পদ্মা সেতুর পিলারের বাদাম খুলেছেন এক যুবক। কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই বিকেলে রাজধানীর শান্তিনগর এলাকা থেকে বায়েজিদ তালহাকে (৩১) গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে পদ্মা সেতু দক্ষিণ থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা হয়েছে। মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সোমবার তাকে সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

সোমবার বিকেলে মালিবাগে অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

নাট খুলতে কী ধরনের যন্ত্রপাতি ব্যবহার করা হয়েছে জানতে চাইলে সিআইডির সাইবার ইন্টেলিজেন্স অ্যান্ড রিস্ক ম্যানেজমেন্ট বিভাগের বিশেষ পুলিশ সুপার রেজাউল মাসুদ বলেন, পদ্মা সেতুর নাট বোল্ট হাতে দিয়ে খোলা সম্ভব নয়। আমরা সেতু কর্তৃপক্ষের সাথেও বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করেছি এবং জেনেছি যে এত বড় স্থাপনার নাটবোল্ট হাত দিয়ে খোলা যাবে না,” তিনি বলেন। তবে কীভাবে তিনি এ কাজ করেছেন সে বিষয়ে এখনো কোনো তথ্য দেননি। ওরা একটা গাড়িতে করে সেখানে গেল, সাথে সিজার নামে আরেকজন। সেই কায়সার আইডি থেকে বাদাম খোলার ৩০ থেকে ৩৫ সেকেন্ডের ভিডিও আপলোড করা হয়েছে।

তদন্তের সাথে জড়িত একজন সিআইডি কর্মকর্তা বলেছেন যে বায়েজিদ এবং তার বন্ধু যে গাড়িটি চালিয়েছিলেন তার একটি টোল রশিদ পাওয়া গেছে। সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে গাড়িটিকে শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে। তিনি বলেন, আমরা বায়েজিদের সঙ্গে ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। তার দেখানো তথ্যের ভিত্তিতে আমরা জায়গাটিও শনাক্ত করেছি। স্থানটির নিদর্শন হিসেবে ছবি তোলা হয়েছে।

যন্ত্রপাতি দিয়ে বাদাম খোলার ভিডিও আছে কি না জানতে চাইলে ওই কর্মকর্তা বলেন, বায়েজিদের মোবাইল ফোনে এমন কোনো ভিডিও নেই। তবে আমরা জানতে পেরেছি যে সেখানে উপস্থিত কেউ দৃশ্যটির ভিডিও ধারণ করেছে। আমরা ভিডিওটি উদ্ধারের চেষ্টা করছি। “