১২:৫৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪

কলকাতায় বাংলাদেশ হাইকমিশনের সামনে গুলিবিদ্ধ দুজন নিহত হয়েছেন

নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৩:১৮:২৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১০ জুন ২০২২
  • / ৭৯৬ বার পড়া হয়েছে

bdopennews

কলকাতার পার্ক সার্কাস এলাকায় বাংলাদেশ ডেপুটি হাইকমিশনের অফিসের কাছে এলোপাতাড়ি গুলিতে এক পুলিশসহ দুইজন নিহত হয়েছেন। শুক্রবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, এক সশস্ত্র কনস্টেবল হঠাৎ তার এসএলআর থেকে এলোপাতাড়ি গুলি চালাতে শুরু করে। শুটিংয়ের সময় রাস্তায় মোটরসাইকেল চালাচ্ছিলেন এক নারী। এক পুলিশ কনস্টেবল তাকে লক্ষ্য করে গুলি চালালে তিনি গুলিবিদ্ধ হন। আহত হয়েছেন মোটরসাইকেল চালকও। গুলিতে নিহত মহিলার নাম রিমা সিং। তার বাড়ি হাওড়ার দাসনগরে। অ্যাপের মাধ্যমে ‘র‌্যাপিডিডো’ মোটরসাইকেল বুকিং করছিলেন তিনি।

মহিলা রাস্তায় পড়ে যাওয়ার পর গুলিবিদ্ধ পুলিশ কনস্টেবল চোদুপা লেপচা হাতে থাকা এসএলআর দিয়ে গলায় গুলি করে প্রকাশ্য সড়কে আত্মহত্যা করেন।

নিহত লেপচা বাংলাদেশ হাইকমিশনের পুলিশ ফাঁড়িতে নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিলেন। ছুটির পর আজ কাজে যোগ দিয়েছেন তিনি। কিন্তু দুপুর আড়াইটার দিকে সে হঠাৎ তার এসএলআর দিয়ে এলোপাতাড়ি গুলি ছুড়তে থাকে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, তিনি পাঁচ মিনিটের মধ্যে ১০ থেকে ১৫টি গুলি চালান। এক বছর আগে কলকাতা পুলিশে চাকরি পান লেপচা।

লেপচা সহকর্মীরা পুলিশকে জানিয়েছেন লেপচা মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন।

ঘটনাটি ঘটেছে কলকাতায় বাংলাদেশ ডেপুটি হাইকমিশন অফিস থেকে ৫০ মিটার দূরে। ঘটনার পর পুরো পার্ক সার্কাস এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। গুলিবর্ষণের সময় লোকজন এদিক-ওদিক দৌড়াতে থাকে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

কলকাতায় বাংলাদেশ হাইকমিশনের সামনে গুলিবিদ্ধ দুজন নিহত হয়েছেন

আপডেট সময় ০৩:১৮:২৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১০ জুন ২০২২

কলকাতার পার্ক সার্কাস এলাকায় বাংলাদেশ ডেপুটি হাইকমিশনের অফিসের কাছে এলোপাতাড়ি গুলিতে এক পুলিশসহ দুইজন নিহত হয়েছেন। শুক্রবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, এক সশস্ত্র কনস্টেবল হঠাৎ তার এসএলআর থেকে এলোপাতাড়ি গুলি চালাতে শুরু করে। শুটিংয়ের সময় রাস্তায় মোটরসাইকেল চালাচ্ছিলেন এক নারী। এক পুলিশ কনস্টেবল তাকে লক্ষ্য করে গুলি চালালে তিনি গুলিবিদ্ধ হন। আহত হয়েছেন মোটরসাইকেল চালকও। গুলিতে নিহত মহিলার নাম রিমা সিং। তার বাড়ি হাওড়ার দাসনগরে। অ্যাপের মাধ্যমে ‘র‌্যাপিডিডো’ মোটরসাইকেল বুকিং করছিলেন তিনি।

মহিলা রাস্তায় পড়ে যাওয়ার পর গুলিবিদ্ধ পুলিশ কনস্টেবল চোদুপা লেপচা হাতে থাকা এসএলআর দিয়ে গলায় গুলি করে প্রকাশ্য সড়কে আত্মহত্যা করেন।

নিহত লেপচা বাংলাদেশ হাইকমিশনের পুলিশ ফাঁড়িতে নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিলেন। ছুটির পর আজ কাজে যোগ দিয়েছেন তিনি। কিন্তু দুপুর আড়াইটার দিকে সে হঠাৎ তার এসএলআর দিয়ে এলোপাতাড়ি গুলি ছুড়তে থাকে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, তিনি পাঁচ মিনিটের মধ্যে ১০ থেকে ১৫টি গুলি চালান। এক বছর আগে কলকাতা পুলিশে চাকরি পান লেপচা।

লেপচা সহকর্মীরা পুলিশকে জানিয়েছেন লেপচা মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন।

ঘটনাটি ঘটেছে কলকাতায় বাংলাদেশ ডেপুটি হাইকমিশন অফিস থেকে ৫০ মিটার দূরে। ঘটনার পর পুরো পার্ক সার্কাস এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। গুলিবর্ষণের সময় লোকজন এদিক-ওদিক দৌড়াতে থাকে।