০১:২১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪

কম তেল দেওয়ায় রাজধানীর পেট্রোল পাম্পকে জরিমানা করা হয়েছে

নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৪:৪৭:৩৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ অগাস্ট ২০২২
  • / ৬৪৪ বার পড়া হয়েছে

bdopennews

কম জ্বালানি দেওয়ার অভিযোগে এক যুবকের প্রতিবাদ করায় রাজধানীর কল্যাণপুরের পেট্রোল পাম্প সোহরাব সার্ভিস স্টেশনে অভিযান চালিয়েছে বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস অ্যান্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন (বিএসটিআই)। মঙ্গলবার বিকেলে এ অভিযান চালানো হয়। এ সময় পেট্রোল পাম্পের দুটি ইউনিটে প্রতি ১০ লিটার ডিজেলে ৪০ মিলিলিটার দেওয়ায় বিএসটিআইয়ের ভ্রাম্যমাণ আদালত দুই লাখ টাকা জরিমানা করেন। জ্বালানি কম দেওয়ার অভিযোগে গতকাল সাত ঘণ্টা এই পেট্রোল পাম্পের সামনে দাঁড়িয়েছিলেন বেসরকারি ব্যাংকের কর্মকর্তা ইসতিয়াক আহমেদ। মঙ্গলবার সকালে রাজধানীর কারওয়ান বাজারে জাতীয় ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তরে এসে লিখিত অভিযোগ করেন তিনি। এরপর অ্যাকশনে যায় বিএসটিআই।

দক্ষিণ কল্যাণপুরের খালেক ফিলিং স্টেশনে দুটি ইউনিটে প্রতি ১০ লিটার ডিজেলে ৫০ মিলি কম, ৪০ মিলি কম ও ৩১০ মিলি কম অকটেন দেওয়ায় মঙ্গলবার দুপুর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত তিন লাখ টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় রহমান ফিলিং স্টেশনে ডিজেল ইউনিটে প্রতি ১০ লিটারে ৬০ মিলিলিটার কম দেওয়ার জন্য ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। একই সঙ্গে তেল কম থাকায় এ তিনটি ফিলিং স্টেশনের ৬টি ইউনিট সিলগালা করা হয়েছে। বিএসটিআইয়ের ভ্রাম্যমাণ আদালতের নেতৃত্বে রয়েছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ হাসিব সরকার।

বিএসটিআইয়ের উপ-পরিচালক (সিএম) রিয়াজুল হক জানান, তেলের সরবরাহ কম থাকার প্রমাণ পাওয়ায় সোহরাব ফিলিং স্টেশনকে ২ লাখ টাকা এবং আশপাশের দুটি ফিলিং স্টেশনকে ৪ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

ইসতিয়াক আহমেদ জাতীয় ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তরে অভিযোগ করার পর সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে সংস্থাটির মহাপরিচালক এএইচএম সফিকুজ্জামানও মোবাইল কোর্ট পরিচালনার বিষয়টি তুলে ধরেন। তিনি বলেন, ফিলিং স্টেশনগুলোতে তেলের মান ও পরিমাণ নিয়ে অনেক দিন ধরেই অভিযোগ আসছে। তারা বিএসটিআইয়ের সঙ্গে কথা বলে সারাদেশে অভিযান পরিচালনা করবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

কম তেল দেওয়ায় রাজধানীর পেট্রোল পাম্পকে জরিমানা করা হয়েছে

আপডেট সময় ০৪:৪৭:৩৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ অগাস্ট ২০২২

কম জ্বালানি দেওয়ার অভিযোগে এক যুবকের প্রতিবাদ করায় রাজধানীর কল্যাণপুরের পেট্রোল পাম্প সোহরাব সার্ভিস স্টেশনে অভিযান চালিয়েছে বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস অ্যান্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন (বিএসটিআই)। মঙ্গলবার বিকেলে এ অভিযান চালানো হয়। এ সময় পেট্রোল পাম্পের দুটি ইউনিটে প্রতি ১০ লিটার ডিজেলে ৪০ মিলিলিটার দেওয়ায় বিএসটিআইয়ের ভ্রাম্যমাণ আদালত দুই লাখ টাকা জরিমানা করেন। জ্বালানি কম দেওয়ার অভিযোগে গতকাল সাত ঘণ্টা এই পেট্রোল পাম্পের সামনে দাঁড়িয়েছিলেন বেসরকারি ব্যাংকের কর্মকর্তা ইসতিয়াক আহমেদ। মঙ্গলবার সকালে রাজধানীর কারওয়ান বাজারে জাতীয় ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তরে এসে লিখিত অভিযোগ করেন তিনি। এরপর অ্যাকশনে যায় বিএসটিআই।

দক্ষিণ কল্যাণপুরের খালেক ফিলিং স্টেশনে দুটি ইউনিটে প্রতি ১০ লিটার ডিজেলে ৫০ মিলি কম, ৪০ মিলি কম ও ৩১০ মিলি কম অকটেন দেওয়ায় মঙ্গলবার দুপুর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত তিন লাখ টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় রহমান ফিলিং স্টেশনে ডিজেল ইউনিটে প্রতি ১০ লিটারে ৬০ মিলিলিটার কম দেওয়ার জন্য ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। একই সঙ্গে তেল কম থাকায় এ তিনটি ফিলিং স্টেশনের ৬টি ইউনিট সিলগালা করা হয়েছে। বিএসটিআইয়ের ভ্রাম্যমাণ আদালতের নেতৃত্বে রয়েছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ হাসিব সরকার।

বিএসটিআইয়ের উপ-পরিচালক (সিএম) রিয়াজুল হক জানান, তেলের সরবরাহ কম থাকার প্রমাণ পাওয়ায় সোহরাব ফিলিং স্টেশনকে ২ লাখ টাকা এবং আশপাশের দুটি ফিলিং স্টেশনকে ৪ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

ইসতিয়াক আহমেদ জাতীয় ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তরে অভিযোগ করার পর সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে সংস্থাটির মহাপরিচালক এএইচএম সফিকুজ্জামানও মোবাইল কোর্ট পরিচালনার বিষয়টি তুলে ধরেন। তিনি বলেন, ফিলিং স্টেশনগুলোতে তেলের মান ও পরিমাণ নিয়ে অনেক দিন ধরেই অভিযোগ আসছে। তারা বিএসটিআইয়ের সঙ্গে কথা বলে সারাদেশে অভিযান পরিচালনা করবে।