০৯:৪৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪

ব্রাজিলের বিপক্ষে ফাইনালের আগে মেসি ছিলেন অচল

নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৫:০৮:০৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১১ জুন ২০২২
  • / ৮৩৯ বার পড়া হয়েছে

bdopennews

আর্জেন্টিনার কোপা আমেরিকা জয়ের বছর শেষ হতে চলেছে। লা ফিনালিসিমা জয়, ইউরো জয়ী ইতালির বিরুদ্ধে আন্তঃমহাদেশীয় চ্যাম্পিয়নশিপও 10 দিন আগে হয়েছিল। কিন্তু এই দুই শিরোপা নিয়ে আর্জেন্টাইনদের উত্তেজনার শেষ নেই বলে মনে হচ্ছে। আগের বিশ্বকাপ শিরোপা নিয়ে এত আলোচনা শুনে আর্জেন্টিনার প্রতিপক্ষ নেইমারের মনে হতে পারে, আর্জেন্টিনা কি বিশ্বকাপ জিতেছে?

অন্যরা যাই ভাবুক না কেন, আর্জেন্টিনা এখনও উদযাপন করছে। আর্জেন্টিনার টিভি টেলিফিতে এমনটাই শুনেছেন মিডফিল্ডার রদ্রিগো ডি পল। ব্রাজিলের বিপক্ষে কোপা আমেরিকার ফাইনালের আগে কী ঘটেছিল, মেসি কী করেছিলেন তা নিয়ে কথা বলেছেন পল… মেসির সঙ্গে তার সম্পর্কের পাশাপাশি অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের হয়ে খেলা আর্জেন্টাইন মিডফিল্ডার কীভাবে আর্জেন্টিনা দল তাদের কোচ লিওনেল স্কালোনির কথা মানেন তা বিস্তারিত বর্ণনা করেছেন।

আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্কালোনির সঙ্গে দলের মিডফিল্ডার রদ্রিগো ডি পল

কোপা আমেরিকা থেকে বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব এবং লা ফিনালিসিমা সব কিছুতেই আর্জেন্টিনার সাফল্যের পথের মূল খেলোয়াড়দের একজন দ্য পল। মাঝখানে লো সেলসো, লিয়েন্দ্রো পেরেদেসের সঙ্গে তার জুটি বেশ ঘনিষ্ঠ।

মেসির সঙ্গে তার সমন্বয় মাঠে যেমন দেখা যায়, তেমনই দেখা যায় মেসিকে ঘিরে সোশ্যাল মিডিয়ায়। প্রতিপক্ষের ওপর চাপ সৃষ্টি করতে তার যেমন জুড়ি নেই তেমনই খেলা গড়তে হয়। কোপা আমেরিকার ফাইনালে ব্রাজিলের বিপক্ষে আর্জেন্টিনার একমাত্র গোলটি করেন আনহেল ডি মারিয়া। তবে মাঝমাঠ থেকে দুর্দান্ত পাসে গোলটি করেন দ্য পল।

কথায় ও আচার-আচরণে সেই পলের নেতার মতো আচরণ যোগ করুন। সব মিলিয়ে ২৬ বছর বয়সী এই মিডফিল্ডার দ্রুতই আর্জেন্টাইনদের প্রিয় হয়ে উঠেছেন। ক্লাব ফুটবলে এই মুহূর্তে ব্যস্ততা নেই, আর্জেন্টিনারও এই মুহূর্তে কোনো ম্যাচ নেই। ছুটির দিনে তিনি আর্জেন্টিনার টিভি চ্যানেল টেলিফেকে একটি সাক্ষাৎকার দেন। মেসিকে নিয়ে স্বাভাবিক প্রশ্ন উঠেছে।

অধিনায়কের সাথে কথা বলতে গিয়ে, দ্য পল কোপা আমেরিকার ফাইনালের কথা উল্লেখ করেছেন: “ব্রাজিলের বিপক্ষে ফাইনালের দিনে, আমি মেসিকে ম্যাট (দক্ষিণ আমেরিকান হট ড্রিংক) পান করতে দেখেছিলাম এবং মনে হয়েছিল যেন কিছুই হয়নি। আমি পারিনি। বিশ্বাস করুন। তার জন্য সেই দিনটি “সব বা কিছুই” ছিল এবং তিনি সবসময় যেমন ছিলেন তেমনই ছিলেন। সেদিন তাকে দেখে মনে হয়েছিল, “আজ মাঝখানে কিছু হওয়ার সম্ভাবনা নেই। যদি ভাল হয় তবে আপনি ঈশ্বরের মতো হয়ে যাবে, খারাপ হলে নরকের যন্ত্রণা সহ্য করতে হবে।” কোপা আমেরিকায় দারুণ সময় কাটিয়েছেন তিনি।’

মেসির সাথে তার ব্যক্তিগত সম্পর্কের ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে দ্য পলও ব্যাখ্যা করেছেন, “লিওর সাথে প্রথম মুহূর্ত থেকেই সবকিছু সহজ ছিল। (একজন খেলোয়াড় হিসেবে) আগে থেকেই ভালো লাগছিল, এখনও অনুভব করছি। একজন মানুষ হিসেবে আমি তাকে এখন আরও বেশি পছন্দ করি।’ তিনি আরও উল্লেখ করেছেন। আর্জেন্টিনা দলে জেগে ওঠা প্রথম তিন খেলোয়াড়ের নাম: আমরা প্রথমে উঠি।’

শুধু মেসি নয়, আর্জেন্টিনায় এখন প্রশংসিত হচ্ছেন লিওনেল স্কালোনিও। কেন না! 2018 বিশ্বকাপের দুঃস্বপ্নের পর, তরুণ প্রতিভাদের দলে সুযোগ দেওয়া হয়েছে, মেসি-ডি মারিয়ার সাথে আর্জেন্টিনা দলে পালা নিয়ে দলকে শক্তিশালী করেছে। স্কালোনির আর্জেন্টিনা টানা ৩৩ ম্যাচে অপরাজিত, কোপা আমেরিকা ও ফাইনালিসিমা জিতেছে।

স্কালোনির পক্ষে মেসি-ডি পলের এত সম্মান অর্জন করা সম্ভব হত না। “যদি সকাল 10 টায় স্কালোনি আসে এবং আমাদেরকে ‘শুভ রাত্রি’ বলে, তাহলে আমাদের জন্য রাত হয়ে গেছে,” পল বলেছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

ব্রাজিলের বিপক্ষে ফাইনালের আগে মেসি ছিলেন অচল

আপডেট সময় ০৫:০৮:০৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১১ জুন ২০২২

আর্জেন্টিনার কোপা আমেরিকা জয়ের বছর শেষ হতে চলেছে। লা ফিনালিসিমা জয়, ইউরো জয়ী ইতালির বিরুদ্ধে আন্তঃমহাদেশীয় চ্যাম্পিয়নশিপও 10 দিন আগে হয়েছিল। কিন্তু এই দুই শিরোপা নিয়ে আর্জেন্টাইনদের উত্তেজনার শেষ নেই বলে মনে হচ্ছে। আগের বিশ্বকাপ শিরোপা নিয়ে এত আলোচনা শুনে আর্জেন্টিনার প্রতিপক্ষ নেইমারের মনে হতে পারে, আর্জেন্টিনা কি বিশ্বকাপ জিতেছে?

অন্যরা যাই ভাবুক না কেন, আর্জেন্টিনা এখনও উদযাপন করছে। আর্জেন্টিনার টিভি টেলিফিতে এমনটাই শুনেছেন মিডফিল্ডার রদ্রিগো ডি পল। ব্রাজিলের বিপক্ষে কোপা আমেরিকার ফাইনালের আগে কী ঘটেছিল, মেসি কী করেছিলেন তা নিয়ে কথা বলেছেন পল… মেসির সঙ্গে তার সম্পর্কের পাশাপাশি অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের হয়ে খেলা আর্জেন্টাইন মিডফিল্ডার কীভাবে আর্জেন্টিনা দল তাদের কোচ লিওনেল স্কালোনির কথা মানেন তা বিস্তারিত বর্ণনা করেছেন।

আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্কালোনির সঙ্গে দলের মিডফিল্ডার রদ্রিগো ডি পল

কোপা আমেরিকা থেকে বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব এবং লা ফিনালিসিমা সব কিছুতেই আর্জেন্টিনার সাফল্যের পথের মূল খেলোয়াড়দের একজন দ্য পল। মাঝখানে লো সেলসো, লিয়েন্দ্রো পেরেদেসের সঙ্গে তার জুটি বেশ ঘনিষ্ঠ।

মেসির সঙ্গে তার সমন্বয় মাঠে যেমন দেখা যায়, তেমনই দেখা যায় মেসিকে ঘিরে সোশ্যাল মিডিয়ায়। প্রতিপক্ষের ওপর চাপ সৃষ্টি করতে তার যেমন জুড়ি নেই তেমনই খেলা গড়তে হয়। কোপা আমেরিকার ফাইনালে ব্রাজিলের বিপক্ষে আর্জেন্টিনার একমাত্র গোলটি করেন আনহেল ডি মারিয়া। তবে মাঝমাঠ থেকে দুর্দান্ত পাসে গোলটি করেন দ্য পল।

কথায় ও আচার-আচরণে সেই পলের নেতার মতো আচরণ যোগ করুন। সব মিলিয়ে ২৬ বছর বয়সী এই মিডফিল্ডার দ্রুতই আর্জেন্টাইনদের প্রিয় হয়ে উঠেছেন। ক্লাব ফুটবলে এই মুহূর্তে ব্যস্ততা নেই, আর্জেন্টিনারও এই মুহূর্তে কোনো ম্যাচ নেই। ছুটির দিনে তিনি আর্জেন্টিনার টিভি চ্যানেল টেলিফেকে একটি সাক্ষাৎকার দেন। মেসিকে নিয়ে স্বাভাবিক প্রশ্ন উঠেছে।

অধিনায়কের সাথে কথা বলতে গিয়ে, দ্য পল কোপা আমেরিকার ফাইনালের কথা উল্লেখ করেছেন: “ব্রাজিলের বিপক্ষে ফাইনালের দিনে, আমি মেসিকে ম্যাট (দক্ষিণ আমেরিকান হট ড্রিংক) পান করতে দেখেছিলাম এবং মনে হয়েছিল যেন কিছুই হয়নি। আমি পারিনি। বিশ্বাস করুন। তার জন্য সেই দিনটি “সব বা কিছুই” ছিল এবং তিনি সবসময় যেমন ছিলেন তেমনই ছিলেন। সেদিন তাকে দেখে মনে হয়েছিল, “আজ মাঝখানে কিছু হওয়ার সম্ভাবনা নেই। যদি ভাল হয় তবে আপনি ঈশ্বরের মতো হয়ে যাবে, খারাপ হলে নরকের যন্ত্রণা সহ্য করতে হবে।” কোপা আমেরিকায় দারুণ সময় কাটিয়েছেন তিনি।’

মেসির সাথে তার ব্যক্তিগত সম্পর্কের ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে দ্য পলও ব্যাখ্যা করেছেন, “লিওর সাথে প্রথম মুহূর্ত থেকেই সবকিছু সহজ ছিল। (একজন খেলোয়াড় হিসেবে) আগে থেকেই ভালো লাগছিল, এখনও অনুভব করছি। একজন মানুষ হিসেবে আমি তাকে এখন আরও বেশি পছন্দ করি।’ তিনি আরও উল্লেখ করেছেন। আর্জেন্টিনা দলে জেগে ওঠা প্রথম তিন খেলোয়াড়ের নাম: আমরা প্রথমে উঠি।’

শুধু মেসি নয়, আর্জেন্টিনায় এখন প্রশংসিত হচ্ছেন লিওনেল স্কালোনিও। কেন না! 2018 বিশ্বকাপের দুঃস্বপ্নের পর, তরুণ প্রতিভাদের দলে সুযোগ দেওয়া হয়েছে, মেসি-ডি মারিয়ার সাথে আর্জেন্টিনা দলে পালা নিয়ে দলকে শক্তিশালী করেছে। স্কালোনির আর্জেন্টিনা টানা ৩৩ ম্যাচে অপরাজিত, কোপা আমেরিকা ও ফাইনালিসিমা জিতেছে।

স্কালোনির পক্ষে মেসি-ডি পলের এত সম্মান অর্জন করা সম্ভব হত না। “যদি সকাল 10 টায় স্কালোনি আসে এবং আমাদেরকে ‘শুভ রাত্রি’ বলে, তাহলে আমাদের জন্য রাত হয়ে গেছে,” পল বলেছিলেন।